সরকার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করে শক্তির জোরে টিকে থাকার ষড়যন্ত্র করছে

গত ১০ অক্টোবর রাতে চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখা জামায়াতে ইসলামীর আমীর জনাব মো: আনোয়ারুল হক মালিক ও সেক্রেটারী জনাব রুহুল আমীন, পৌরসভা জামায়াতের আমীর জনাব মাসুদ পারভেজ এবং ইসলামী ছাত্রশিবিরের জেলা শাখার সভাপতি মাহফুজুর রহমানসহ ৮জনকে ও গত ৭ অক্টোবর নোয়াখালী জেলার চৌমুহনী পৌরসভা শাখা জামায়াতের আমীর নাসিমুল গণি চৌধুরীকে পুলিশের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী জেনারেল ডা: শফিকুর রহমান আজ ১১ অক্টোবর প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “সরকার একদলীয় স্বৈরশাসন পাকাপোক্ত করার যে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে তারই অংশ হিসেবে চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখা জামায়াতে ইসলামীর আমীর আমীর জনাব মো: আনোয়ারুল হক মালিক ও সেক্রেটারী জনাব রুহুল আমীন, পৌরসভা জামায়াতের আমীর জনাব মাসুদ পারভেজ এবং ইসলামী ছাত্রশিবিরের জেলা শাখার সভাপতি মাহফুজুর রহমানসহ ৮জনকে ও গত ৭ অক্টোবর নোয়াখালী জেলার চৌমুহনী পৌরসভা শাখা জামায়াতের আমীর জনাব নাসিমুল গণি চৌধুরীকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

জনসমর্থনহীন সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্যই সারা দেশে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা শুরু করেছে। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নামে প্রহসনের নাটক করার উদ্দেশ্যেই সরকার সারা দেশে ব্যাপকভাবে গ্রেফতার অভিযান শুরু করেছে। এ থেকে স্পষ্ট প্রতীয়মান হচ্ছে যে সরকার কোনক্রমেই অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে রাজী নয়। সরকার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করে শক্তির জোরে টিকে থাকার ষড়যন্ত্র করছে। এ ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড় করার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

গ্রেফতার অভিযান বন্ধ করে চুয়াডাঙ্গাসহ সারা দেশে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের গ্রেফতারকৃত নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”

No comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *